ঢাকা: ২০১৮-০৮-১৫ ৮:০৮

Khan Brothers Group

আঘাতের ভয়ে হেলমেট পরেই বোলিং

এশিয়ানমেইল২৪.কম

প্রকাশিত : ০২:১৫ পিএম, ২৬ ডিসেম্বর ২০১৭ মঙ্গলবার | আপডেট: ০৫:২১ পিএম, ২৬ ডিসেম্বর ২০১৭ মঙ্গলবার

ছবি: ইন্টারনেট

ছবি: ইন্টারনেট


ডেস্ক: ক্রিকেট মাঠে মাঝে মধ্যেই নানা ধরনের ঘটনা ঘটতে দেখা যায়। আর তার মধ্যে কিছু এমন ঘটনা থাকে যা কল্পনারও বাইরে। কারণ বাইশ গজের খেলায় সেগুলি সচরাচর দেখা যায় না। সাধারণত ব্যাটসম্যানকেই হেলমেট পরে খেলতে দেখা যায়। কিন্তু যখন কোনও বোলার হেলমেট পরে বোলিং করেন তখন! শুনতে অবাক লাগলেও এমনটাই ঘটেছে নিউজিল্যান্ডে। স্থানীয় একটি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে হেলমেট পরে বোলিং করে খবরের শিরোনামে কিউই ক্রিকেটার ওয়ারেন বার্নস।

বহুদিন আগে হেলমেটের আবির্ভাব হয়েছিল ক্রিকেটের মাঠে। কোনওরকম ভাবেই যাতে ব্যাটসম্যানদের মাথায় বলের আঘাত না লাগে, সেজন্য এসেছিল শক্তপোক্ত এই জিনিসটি। পরবর্তী কালে ক্লোজ-ইন ফিল্ডার এবং স্পিনারদের বোলিং করার সময় উইকেট কিপাররাও পরতে শুরু করেন তা। যদিও তাতে দুর্ঘটনার খুব একটা কমেনি, তবে কিছুটা হলেও হ্রাস পেয়েছে। এদিকে, টি-টোয়েন্টির মারকাটারি যুগে আম্পায়াররাও হেলমেটের ব্যবহার শুরু করে দিয়েছেন। কিন্তু বোলারদের মাথায় হেলমেট! নাহ… এ ধরনের কোনও ঘটনা এতদিন সামনে আসেনি। কিন্তু সেটাই এবার করে ফেললেন নিউজিল্যান্ডের এই ক্রিকেটার।

সম্প্রতি হ্যামিলটনে অনুষ্ঠিত ওটাগো বনাম নর্দান নাইটসের ম্যাচে ওই ‘হেডগিয়ার’ পরে তিন ওভার বল করেন ওয়ারেন বার্নস। এই হেলমেট দেখতে অনেকটা বেসবল খেলায় আম্পায়ারদের ব্যবহৃত হেলমেটের মতো। বার্নস এবং ওটাগো ভোল্টের কোচ রব ওয়াল্টারের মিলিত প্রয়াসে এটি তৈরি করা হয়েছে।

কিন্তু কেন এমন কাণ্ড ঘটালেন এই কিউয়ি ক্রিকেটার? নিজেই পরিষ্কার করে জানিয়েছেন তার কারণ। এর আগে অপর এক নাইটস ক্রিকেটার নেইল ওয়াগনের মারা বলে পায়ে চোট পেয়েছিলেন। আর তাই দেখে ভয়ে ‘হেডগিয়ার’ ব্যবহার করেন বার্নস। তিনি জানান, বোলিং করার সময় তার মাথা বিপজ্জনকভাবে ব্যাটসম্যানের সামনে চলে আসছিল। আর তাতে আঘাত লাগার সুযোগ বাড়ছিল। তাই এটি ব্যবহার করেছেন বার্নস। সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

-জেডসি