ঢাকা: ২০১৯-০৩-২১ ২১:৩৪

Khan Brothers Group

ডাকসু নির্বাচন: গণমাধ্যমে সরাসরি সম্প্রচারে নিষেধাজ্ঞা

এশিয়ানমেইল২৪.কম

প্রকাশিত : ০৬:১৭ পিএম, ৮ মার্চ ২০১৯ শুক্রবার | আপডেট: ০৬:১৮ পিএম, ৮ মার্চ ২০১৯ শুক্রবার

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ(ডাকসু) নির্বাচনের প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে ‘আর্চওয়ে মেটাল ডিটেক্টর’ স্থাপন করা হবে। শিক্ষার্থীদের আইডি কার্ড দেখিয়ে নিজ নিজ ভোটকেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে। দুপুর ২টার মধ্যে যারা কেন্দ্রে প্রবেশ করবে তাদের সবারই ভোটগ্রহণ করা হবে।এছাড়া নির্বাচনের দিন গণমাধ্যমের ওপর ব্যাপক কড়াকড়ি আরোপ করেছে কর্তৃপক্ষ। নিষিদ্ধ করা হয়েছে সরাসরি সম্প্রচারও।

আজ শুক্রবার বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ বিভাগ থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।  

এতে বলা হয়, নির্ধারিত সময় মধ্যে সকাল ৮টা থেকে ২টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ সম্ভব হবে না বলে বিভিন্ন ছাত্রসংগঠন সময় বাড়ানোর দাবি জানালে প্রভোস্ট কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

ভোটার নিজের আইডি কার্ড দেখিয়ে ব্যালট পেপার সংগ্রহ করে প্রার্থীর নামের ডানপাশে নির্ধারিত ঘরে ক্রস চিহ্ন দিয়ে ভোটাধিকার প্রয়োগ করবে। দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ বুথ ও প্রয়োজনীয় সহযোগিতার ব্যবস্থা রাখা হবে।

নির্বাচনের দিন গণমাধ্যম কর্মীরা চিফ রিটার্নিং অফিসার কর্তৃক ইস্যুকৃত পরিচয়পত্র দেখিয়ে সংশ্লিষ্ট হলের রিটার্নিং অফিসারের অনুমতি নিয়ে ভোট কেন্দ্রের গেস্টরুম বা নির্ধারিত স্থান পর্যন্ত প্রবেশ করতে পারবে। ভোট কেন্দ্র থেকে কোনও সরাসরি সম্প্রচার করা যাবে না। ভোট কেন্দ্রে মোবাইল ফোনসহ সকল ধরনের ইলেকট্রনিক ডিভাইস ব্যবহার নিষিদ্ধ।

এছাড়া নির্বাচনের দিন বিশ্ববিদ্যালয়ের তিনটি প্রবেশ পথ (নীলক্ষেত, শাহবাগ ও হাইকোর্ট) বিশেষ নিরাপত্তা বেষ্টনীর আওতায় থাকবে। এ তিন প্রবেশ পথ দিয়ে শুধু ভোটার ও নির্বাচন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা নিজ নিজ পরিচয়পত্র দেখিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে প্রবেশ ও বের হবেন। ভোট কার্যক্রমের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট পাসযুক্ত যানবাহন বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্ধারিত তিনটি গেট দিয়ে চলাচল করবেন। শিক্ষার্থীদের অবাধ চলাচল ও শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্ধারিত ও স্টিকারযুক্ত যানবাহন ব্যতীত অন্য কোনো যানবাহন ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে পারবে না। ওইদিন সর্বসাধারণকে রাত ১০টা পর্যন্ত বিকল্প রাস্তা ব্যবহারের জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে।

সভায় উপস্থিত ছিলেন প্রো-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. নাসরিন আহমাদ, প্রো-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ, চিফ রিটার্নিং অফিসার অধ্যাপক ড. এস. এম. মাহফুজুর রহমান, প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী।

-জেডসি