ঢাকা: ২০১৯-০৩-২১ ২২:০৮

Khan Brothers Group

প্লাস্টিক-পলিথিনের দূষণরোধে প্রয়োজনে আইন সংশোধন

এশিয়ানমেইল২৪.কম

প্রকাশিত : ০২:৩৮ পিএম, ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ বুধবার | আপডেট: ০২:৪১ পিএম, ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ বুধবার

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

নিজস্ব প্রতিবেদক: পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তনবিষয়ক মন্ত্রী মোহাম্মদ শাহাব উদ্দিন জানিয়েছেন, প্লাস্টিক ও পলিথিনের দূষণরোধে প্রয়োজনে সরকার আইন সংশোধন করবে। এছাড়া প্লাস্টিক ও পলিথিনের ব্যবস্থাপনায় সারাদেশে যুগপৎ কর্মসূচিও হাতে নেয়া হবে। একইসাথে সুষ্ঠু কর্মপরিকল্পনা ও পাইলট প্রকল্পসহ বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়নের মাধ্যমে দেশে প্লাস্টিকের বিকল্প ব্যবহারে জনগণকে সচেতন করে তোলা হবে।

বুধবার রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁয়ে পরিবেশ অধিদফতর, বিশ্বব্যাংক, দেশীয় ও আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানের যৌথ উদ্যোগে ‘সাসটেইনেবল মানেজমেন্ট অব প্লাস্টিক টু লিভারেজ সার্কুলার ইকোনমি অ্যান্ড এচিভ এসডিজি ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, দেশে প্লাস্টিক ও পলিথিনের দূষণ বাড়ছে। এটি দেশের জাতির ও বিশ্বের ক্ষতি করছে। দূষণরোধে প্রয়োজনে আইন সংশোধন করা হবে।

পরিবেশ অধিদফতরের মহাপরিচালক সুলতান আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার, সচিব আবদুল্লাহ আল মোহসীন চৌধুরী। উপস্থিত ছিলেন বিশ্বব্যাংকের প্র্যাকটিস ম্যানেজার মাগদা লাভ ই প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, স্বল্পমূল্য, সহজলভ্যতা ও ব্যবহারিক উপযোগিতা থাকায় নগর জীবনের অনুষঙ্গ হিসেবে গত কয়েক দশকে প্লাস্টিকসামগ্রী (প্লাস্টিক, পলিব্যাগ, প্লাস্টিক মোড়ক ও অন্যান্য প্লাস্টিক সামগ্রী ) পণ্যের ব্যবহার ব্যাপক বৃদ্ধি পাচ্ছে।

তারা বলেন, বিশ্বে প্রতি বছর ৮০ লাখ টনের বেশি প্লাস্টিক সমুদ্রে পতিত হচ্ছে অর্থাৎ প্রতি মিনিটে এক ট্রাক প্লাস্টিক আবর্জনা সমুদ্রে স্থান পাচ্ছে। এ ছাড়া বিশ্বে ৮০ থেকে ১২০ বিলিয়ন ডলার প্লাস্টিক সামগ্রী সুস্ঠু ব্যবস্থাপনার অভাবে অর্থনৈতিক ক্ষতি হচ্ছে।

এ/কে