ঢাকা: ২০১৮-০৯-২৩ ১৮:২৬

Khan Brothers Group

বইমেলায় সৈয়দা রাশিদা বারী’র ৬টি বই

এশিয়ানমেইল২৪.কম

প্রকাশিত : ০১:৩৭ পিএম, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ মঙ্গলবার | আপডেট: ০৩:১২ পিএম, ৬ মার্চ ২০১৮ মঙ্গলবার


নিজস্ব প্রতিবেদক : এবারের অমর একুশে বইমেলায় ভাষা সৈনিক সৈয়দ রফিকুল ইসলাম (পুনুমিয়া)’র কন্যা কবি সৈয়দা রাশিদা বারী’র ছয়টি বই প্রকাশিত হয়েছে। এর মধ্যে শিশু বিষয়ক গ্রন্থ সংখ্যা চারটি এবং অন্যান্য দুইটি।

ছোটদের আসরে বঙ্গবন্ধু (শিশু কিশোর উপন্যাস) ও বাংলাভাষা বাংলাদেশ এবং বঙ্গবন্ধু (অনেকটা গবেষণাধর্মী, মায়ের ভাষা দেশ মাটি এবং বঙ্গবন্ধুর নিয়ে রচিত কবিতা মালা) নামে বই দুইটি প্রকাশ করেছে পার্ল পাবলিকেশন্স।  

শিশুর মাঝে বঙ্গবন্ধু (বঙ্গবন্ধুর নিয়ে লেখা মজাদার ছড়া, ছবিসহ) ও ইলিং ফিলিং (শিশুদের শিক্ষণীয় ছড়া কবিতা) বই দুইটি প্রকাশ করেছে রাবেয়া বুকস।  

খাবারে পুষ্টি জীবনে তুষ্টি (সুগৃহিনীদের জন্য ঘরোয়া রান্নার উপমাসহ তৈরীর পদ্ধতিতে সাজানো একটি অত্যাধুনিক মানের রান্না গ্রন্থ) প্রকাশ করেছে নবরাগ প্রকাশনী। এছাড়া জাহান পাবলিকেশন্স থেকে বেঁড়িয়েছে দ্বিতীয় শ্রেণীর জন্য পাঠ্যবই পদ্মকুড়ি বাংলা ব্যকরণ ও নির্মিতি।  

৯১টি গ্রন্থের প্রণেতা এই ভাষা সৈনিকের কন্যা কবি সৈয়দা রাশিদা বারী মেলার অনুভতি ব্যক্ত করতে বলেন, বইই আমার পথ চলা যখন, তখন বই মেলাই আমার প্রাণের সবটুকু বলতে পারি। মেলাই স্পেইচ ও অন্যান্য সবই ভালো।  কিন্তু যানজট ও নানান প্রতিকুলতা কাটিয়ে মেলায় আসতে পারি না উপযুক্ত সময়ের মধ্যে। সরকার যদি আমাদের মতোন রক্তেই যার সাহিত্য শ্রবণ, ভাষার শ্রবন, দেশ প্রেমের নেশা। লেখালেখিতে ডুবে থেকেই জীবন কাটাতে সাচ্ছন্দিত। জীবনে সব ত্যাগ করে যিনি লেখাকেই বেছে নিয়ে পথ চলছেন কাটার আচড় দুঃখ কষ্ট বেদনা সয়ে। এই তাদের জন্য সব মাস না হোক, ফেব্রুয়ারির জন্য একটা সুব্যবস্থা করতেন তাহলে আমি মনে করি খুব ভালো হতো। ভাষা শহীদ ও ভাষা সৈনিকদের সৌজন্যে সরকারের আর একটা মানবিক তথা গুরু দায়িত্বও পালন করা হতো।

জেডসি