ঢাকা: ২০১৯-০২-২১ ০:১৯

Khan Brothers Group

বরগুনায় চাঁদা দাবীর অভিযোগে আবুল হাসান বেল্লালের বিরুদ্ধে মামলা

এশিয়ানমেইল২৪.কম

প্রকাশিত : ১০:২৯ এএম, ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ শনিবার | আপডেট: ০১:০২ পিএম, ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ শনিবার

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

বরগুনা প্রতিনিধি: বাংলাদেশ সরকারী প্রাথমিক শিক্ষক কল্যান সমিতি বরগুনা জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক মো. আলমগীর হোসেন এর নিকট এক লাখ টাকা চাঁদা দাবীর অভিযোগে আবুল হাসান বেল্লালের নামে বরগুনার চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আমলী আদালতে একটি মামলা দায়ের হয়েছে।
 
জানা গেছে, আবুল হাসান বেল্লাল (৩০), পিতাঃ মৃত মো. আব্দুল খবির মুসুল্লী,সাং- সাহেবের হাওলা,৩ নং ফুলঝুড়ি ইউপি, থানা ও জেলা-বরগুনা,এর বিরুদ্ধে বাংলাদেশ সরকারী প্রাথমিক শিক্ষক কল্যান সমিতি বরগুনা জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক মো. আলমগীর হোসেন এর নিকট হতে গত ২১ জুলাই ২০১৮ তারিখে ১০০০০০/ টাকা চাঁদা দ্বাবী করেন। পরে তিনি বাদী হয়ে বিজ্ঞ চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বরগুনা আমলী আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন,যাহার- সি আর মামলা নং- ৫৩০/১৮ তাং- ৩১-০৭-১৮ খ্রিঃ বিজ্ঞ আদালতের স্বারক নং -২৭২ তাং ৩১-০৭-১৮ খ্রিঃ। আদালত মামলাটি তদন্তের জন্য অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, পাথরঘাটা সার্কেল, অতিরিক্ত দায়িত্বে সদর সার্কেল, বরগুনা, ( বি,এম, আশরাফ উল্যাহ তাহের)কে  দ্বায়িত্ব দেন। তদন্ত কালে আবুল হাসান বেল্লাল ও তার সহকর্মী মো. নিয়ামুল হাসান নিয়াজ সহ অজ্ঞাত ৪/৫ জন এর বিরুদ্বে বাদীর আনিত অভিযোগ প্রাথমিক ভাবে সত্য বলে প্রকাশ পায় এবং তদন্ত কালে তাদের বিরুদ্ধে আরো একাদিক মামলা রয়েছে বলেও জানা যায় -যেমন গত- ০৯ মে ২০১৮ তারিখে বাংলাদেশ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি বরগুনা সদর সভাপতি আব্দুল আলিম লিটন এর নিকট ১০০০০০/ টাকা চাঁদা দাবী করায় তিনি বাদী হয়ে বরগুনা সদর থানায় মামলা করেন যাহার মামলা নং ১১,ধারা ১৪৩/৩৪১/৩৮৫/৫০৬ দঃবিঃ দায়ের করেন।

পরে এই মামলা আবুল হাসান বেল্লাল প্রায় ২৮ দিন হাজতবাস থেকে অস্থায়ী জামিনে আসেন। মামলটি তদন্তকারী বরগুনা থানার এস আই জুয়েল হাওলাদার তদন্ত শেষে সত্যতা প্রমানিত হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে থানায় অপর একটি অভিযোগ দ্বায়ের করেন, অভিযোগ পত্র নং-৩৮১তাং ৩০-০৬-১৮ ইং। এ ছাড়াও পুর্ব গুদিঘাটা নুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আবুল হোসেন আবুল হাসান বেল্লাল এর বিরুদ্ধে বাদী হয়ে বরগুনা থানার মামলা নং-৪২ তাং-৩০-১২-২০১৬ খ্রিঃ। উক্ত মামলাটি বরগুনা থানার এস আই মো. আবু হনিফ তদন্ত পূর্বক আসামীর বিরুদ্ধে অবিযোগ প্রমানিত হওয়ায় তাহার বিরুদ্ধে থানার অভিযোগ পত্র নং-১৩, তাং-২১-১-২০১৭ খ্রিঃ ধারা দ্রুত বিচার আইনের ৪/৫ ধারা বিজ্ঞ আদালতে দাখিল করেন। আারো উল্লেখ্য থাকে যে আবুল হাসান বেল্লাল এর বিরুদ্ধে মো. আলমগীর হোসেন বাদী হয়ে বিজ্ঞ আমলী আদালতে যে(৫৩০/১৮) মামলাটি দায়ের করেন। উক্ত মামলায় বিজ্ঞ আদালত থেকে মামলার ওয়ারেন্ট হওয়ার আভাস পেয়ে আবুল হাসান বেল্লাল ঢাকাতে ফেরারী আসামী হিসেবে পলাতক রয়েছেন বলে জানান মামলার বাদী মো. আলমগীর হোসেন। তিনি আরো বলেন বেল্লালকে টাকা দিতে অপারকতা স্বীকার করায় বাদীকে প্রান নাশের হুমকিও দেন বেল্লাল।

এবিষয়ে অভিযুক্ত আবুল হাসান বেল্লাল বলেন, আমার বিরুদ্ধে যে সব অভিযোগে মামলা হয়েছে তা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও ভিত্তিহীন। 

এ/কে