ঢাকা: ২০১৯-০৩-২২ ৩:৪২

Khan Brothers Group

ভাস্কর্য গ্যালারি ‘সেলিব্রেটি গ্যালারি’ উন্মক্ত হচ্ছে শনিবার

এশিয়ানমেইল২৪.কম

প্রকাশিত : ১১:৩৭ এএম, ৭ ডিসেম্বর ২০১৮ শুক্রবার

ছবি: সংগৃহিত

ছবি: সংগৃহিত

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিখ্যাত মানুষদের সান্নিধ্য পেতে কে না ভালোবাসেন, কিন্তু সেই সৌভাগ্য সবার হয় না। কিন্তু এই অপূর্ণতা পূরণে বিশ্বে তৈরি হয়েছে ওয়াক্স মিউজিয়াম বা ‘মোমেম জাদুঘর’। লন্ডনের মাদাম তুসো এ ক্ষেত্রে বিখ্যাত। সিঙ্গাপুর ও ভারতসহ নানা দেশে এ ধরনের জাদুঘর আছে। বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো এমন একটি জাদুঘর যাত্রা শুরু করতে যাচ্ছে আগামীকাল শনিবার।

রাজধানী ঢাকার গুলশান-১ এর রোড ২ এর ৫এ প্রায় বারো কাঠার উপর নির্মিত একটি বাড়িতে যাত্রা শুরু করছে ‘সেলিব্রেটি গ্যালারি’। সম্পূর্ণ জাদুঘর না হলেও বিশাল গ্যালারির আদলে ঢাকায় এমন উদ্যোগ এই প্রথম। ‘সেলিব্রেটি গ্যালারি’ শিরোনামের এই গ্যালারিতে পৃথিবীর নানা অঙ্গনের বিখ্যাত সব ব্যক্তিত্বের প্রতিকৃতি ভাস্কর্য স্থান পেয়েছে।

আজ শুক্রবার বিকেলে একই ঠিকানায় এ গ্যালারিটির উদ্বোধন উপলক্ষ্যে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। আগামীকাল শনিবার বেলা ১২ টা থেকে এ গ্যালারি সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হবে।

শুরুতেই ৩২ জন ব্যক্তিত্বের প্রতিকৃতি ভাস্কর্য নিয়ে পথচলা শুরু করছে ‘সেলিব্রেটি গ্যালারি’। দেশের খ্যতিমান ভাস্কর্য শিল্পী মৃণাল হক এর উদ্যোক্তা।

তবে এখানে যে ভাস্কর্যগুলো স্থান পাবে সগুলো মোমেম নয়, ফাইভার গ্লাসের তৈরি। কাব্যচর্চায়মগ্ন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, কারারুদ্ধ বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলাম, সাদা পোশাকে মানবতার দূত মাদার তেরেসা, রাইফেল কাঁধে বিপ্লবী চে গুয়েভারা, আস্থার হাতটি তুলে বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, গানের মঞ্চে পপ কিং মাইকেল জ্যাকসন, ফাঁসির মঞ্চে ক্ষুদিরাম, খ্যাতিমান অভিনেতা চার্লি চ্যাপলিন, মি বিন খ্যাত রোয়ান অ্যাটকিনসন, পাইরেটস অব দ্য ক্যারিবিয়ানের ক্যাপ্টেন জ্যাক স্প্যারো, বলিউড তারকা শাহরুখ খান, বিখ্যাত কমেডি সিরিজ থ্রি স্টুজেস এর তিন খ্যতিমান চরিত্রসহ মোট ৩২ জন বিখ্যাত ব্যক্তিত্ব।

জানা গেছে, প্রায় ৬ মাস ধরে এই গ্যালারি নির্মাণে কাজ চলছিল। ৩৭টি ভাস্কর্য নিয়ে কাজ শুরু হলেও প্রথমদিকে প্রদর্শিত হবে ৩২জন ব্যক্তিত্বের প্রতিকৃতি।

গ্যালারিটির উদ্যোক্তা ভাস্কর মৃনাল হক বলেন, দেশে মোজাইক পেন্টিং, টাইলস নিয়ে শিল্পকর্ম এগুলো আমি শুরু করেছিলাম। আমি আমার ভাস্কর্যে মধ্য দিয়ে আমার দেশ, সংস্কৃতিকে তুল ধরছি। সবাইকে বুঝাতে চেষ্টা করছি এগুলো ভাস্কর্য, মূর্তি নয়। আমাদের দেশের মানুষ বাইরে গিয়ে তারকাদের ভাস্কর্য জাদুঘরে ছবি তোলে, সময় কাটায়। আমি সেইরকম একটা কাজ দেশেই করতে চেয়েছি। তবে আমি এটাকে জাদুঘর নয়, গ্যালারি হিসেবে নামকরণ করেছি। এমন বড় একটি কাজে আর্থিক সহযোগিতার প্রসঙ্গ টানলে তিনি বলেন, প্রায় ৯০ ভাগ কাজই আমার ব্যক্তিগত খরচে করেছি। ব্যক্তিগত পর্যায়ে কিছু সহযোগিতা করেছেন চ্যানেল আইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর। তবে আমি আশা করি, গ্যালারিটি দেখার পর আরও অনেকেই এর ব্যাপ্তি ছড়িয়ে দিতে সহযোগিতা নিয়ে এগিয়ে আসবেন। সর্বসাধারণের প্রবেশে কেনো টিকিট সংগ্রহ করতে হবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ ব্যাপারে এখনও কেনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

ও/র