ঢাকা: ২০১৮-০৯-২০ ১৪:২৫

Khan Brothers Group

রাশিয়ার হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা

এশিয়ানমেইল২৪.কম

প্রকাশিত : ১১:৩১ এএম, ১২ মার্চ ২০১৮ সোমবার | আপডেট: ০২:১৪ পিএম, ১৩ মার্চ ২০১৮ মঙ্গলবার

ছবি: ইন্টারনেট

ছবি: ইন্টারনেট

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: শব্দের চেয়ে ১০ গুণ বেশি গতির হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালিয়েছে রাশিয়া। গতকাল রবিবার এ পরীক্ষা চালানো হয়েছে বলে দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় নিশ্চিত করেছে।

চলতি মাসের শুরুর দিকে পরবর্তী প্রজন্মের নতুন এ অস্ত্র রাশিয়ার হাতে রয়েছে বলে দাবি করেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। ওই সময় তিনি বলেন, এটি একটি আদর্শ অস্ত্র।

এ অস্ত্রকে অপ্রতিরোধ্য হিসেবে দাবি করে পুতিন বলেন, নতুন ধরনের এ হারপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র বিদ্যমান ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার চোখ ফাঁকি দিয়ে অথবা ভেদ করে লক্ষ্যে আঘাত হানতে সক্ষম।

রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলছে, রাশিয়ার দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের সাউথ সামরিক জেলার একটি বিমানঘাঁটি থেকে সুপারসনিক ইন্টারসেপ্টর বিমান মিগ-৩১ উড্ডয়ন করে। এ বিমান থেকেই উচ্চ-ক্ষমতাসম্পন্ন হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র ‘কিনঝাল’ নিক্ষেপ করা হয়েছে।

‘পরিকল্পনা অনুযায়ীই ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয়েছে, হাইপারসনিক এ ক্ষেপণাস্ত্র লক্ষ্যে আঘাত হেনেছে।’

মন্ত্রণালয়ের প্রকাশিত একটি ভিডিওতে দেখা যায়, দু’জন পাইলট বিমান উড্ডয়নের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। পরে বৃহৎ ক্ষেপণাস্ত্র বহনকারী ওই বিমানের দিকে এগিয়ে যান তারা।

দেশটির জাতীয় নির্বাচন ১৮ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে। এ নির্বাচনের আগে গত ১ মার্চ জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেন পুতিন।

রাশিয়ার এই প্রেসিডেন্টের ভাষণের সময় প্রজেক্টরে একটি ভিডিও প্রদর্শন করা হয়। যেখানে দেখা হয় অত্যানুধিক ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র। ভিডিওতে বিশ্ব মানচিত্রের যে কোনো স্থানে এ ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাত হানার দৃশ্য দেখানো হয়। ভিডিও শুরুর আগে পুতিন বলেন, বিশ্বের সর্বত্রই এ ক্ষেপণাস্ত্র পৌঁছাতে পারে।

ভিডিও প্রেজেন্টেশনে তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের কোনো প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাই ইউরোপ এবং এশিয়ায় এই ক্ষেপণাস্ত্রকে থামাতে পারবে না। এছাড়া সাবমেরিন নিয়েও আলোচনা করেন ভ্লাদিমির পুতিন। এসময় তিনি বলেন, পারমাণবিক বোমাবাহী এ সাবমেরিন দীর্ঘপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র পরিবহনেও সক্ষম।

পুতিন বলেন, শব্দের চেয়ে ১০ গুণ বেশি গতিতে ছুটতে সক্ষম এই হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র; যা যে কোনো ধরনের আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাকে ফাঁকি দিয়ে লক্ষ্যে আঘাত হানতে সক্ষম। সূত্র: এএফপি, রয়টার্স।