ঢাকা: ২০১৮-০৮-১৫ ৮:০৭

Khan Brothers Group

‘সহনীয় মাত্রায় ঘুষ’ নিয়ে মন্তব্যের ব্যাখ্যা দিলেন শিক্ষামন্ত্রী

এশিয়ানমেইল২৪.কম

প্রকাশিত : ০৩:৪৫ পিএম, ২৭ ডিসেম্বর ২০১৭ বুধবার | আপডেট: ০২:১২ পিএম, ২৮ ডিসেম্বর ২০১৭ বৃহস্পতিবার

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক: ‘সহনশীল মাত্রায় ঘুষ খাওয়ার পরামর্শ’ দিয়ে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের বক্তব্যকে উদ্ধৃত করে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ নিয়ে চলছে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা। অবশেষে সংবাদ সম্মেলন করে সেদিনের বক্তব্যের ব্যাখ্যায় শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন, কতিপয় মিডিয়া আমার বক্তব্য ‘খণ্ডিতভাবে’ তুলে ধরায় বিভিন্ন প্রশ্ন উঠেছে- খণ্ডিত এই বক্তব্য জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করেছে।

দুপুরে সচিবালয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যের মাধ্যমে নিজের ব্যাখ্যা দেন শিক্ষামন্ত্রী। তবে পরে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করতে চাইলে তিনি কোনো প্রশ্নের উত্তর দেননি। লিখিত বক্তব্যই তার উত্তর বলে তিনি সম্মেলনকক্ষ ত্যাগ করেন।

লিখিত বক্তব্যে মন্ত্রী বলেন, ‘শিক্ষা ভবনের অনুষ্ঠানের সংবাদ বেশিরভাগ গণমাধ্যমে যথোপযুক্তভাবে তুলে ধরা হলেও কতিপয় পত্রিকা ও অনলাইন মিডিয়ায় আমার বক্তব্য খণ্ডিতভাবে প্রকাশিত হওয়ায় জনমনে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়েছে। সেই বিভ্রান্তির ওপর ভিত্তি করে কতিপয় বিশিষ্টজন ও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের মতামতও জনমনে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে।’

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘ডিআইএ কর্মকর্তারা তাদের অতীতের দুঃখ-কষ্টের কথা বলেছেন। আমি যখন মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নিই, তখন সাধারণ শিক্ষকরা আমার কাছে তাদের বিভিন্ন হয়রানির কথা বলতেন। তাদের অল্প বেতনের কথা আমাকে বলতেন। আমি সেই কথাগুলো ওই দিন বলেছিলাম। পত্রপত্রিকায় আমার ওই কথাগুলো ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। এতে ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হয়েছে।’

নাহিদ আরো বলেন, ‘আশা করি আমার এই বক্তব্যের পর ভুল বোঝাবুঝির অবসান হবে। আমাদের সরকার ঘুষ-দুর্নীতির ব্যাপারে জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করেছে। ফলে শিক্ষকদের এখন আর হয়রানির শিকার হতে হয় না।’

গত ২৪ ডিসেম্বর শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ পরিদর্শন ও নিরীক্ষা অধিদপ্তরের (ডিআইএ) কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মাঝে ল্যাপটপ ও প্রশিক্ষণ সনদ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এ সময়  বক্তৃতায় শিক্ষামন্ত্রী এ অধিদপ্তরের অতীতের আট বছর আগের উদাহরণ দিতে গিয়ে ডিআইএর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিভিন্ন অনিয়ম-দুর্নীতির কথা তুলে ধরেন। তিনি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সহনশীল মাত্রায় ঘুষ খাওয়ার পরামর্শ দেন বলে উল্লেখ করা হয় বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে।