ঢাকা: ২০১৯-০২-১৬ ৯:২৯

Khan Brothers Group

স্পেনের চেয়ে ভালো দল নেই: জাভি আলোনসো

এশিয়ানমেইল২৪.কম

প্রকাশিত : ০৬:০১ পিএম, ১১ জুন ২০১৮ সোমবার

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

ডেস্ক রিপোর্ট: বিশ্বকাপের টপ ফেবারিটদের তালিকায় আছে স্পেনের নাম। ২০১৬ সালের ইউরোর পর থেকে এ পর্যন্ত কোন ম্যাচ হারেনি লা রোজারা। সেই দলের অন্যতম সদস্য জাভি আলোনসো মনে করেন, রাশিয়া বিশ্বকাপে স্পেনের থেকে ভালো দল আর একটাও নেই। ক্যারিয়ারে যা কিছু জেতা সম্ভব প্রায় সবই জেতা এই তারকা স্পেন দলের সম্ভাবনা নিয়ে ফিফাডটকমকে একটি সাক্ষাৎকার দিয়েছেন।

২০০৮ ও ২০১২ সালে ইউরো জেতা এবং ২০১০ সালে বিশ্বকাপ জেতা সাবেক এই তারকা কথা বলেছেন নিজের কোচ হওয়ার পরিকল্পনা নিয়ে। এছাড়া লিভারপুলের হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগ, রিয়ালের হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতেছে। লা লিগা, কোপা দেল রে উঠেছে তার হাতে। বায়ার্ন মিউনিখের হয়ে বুন্দেসলিগা শিরোপা জেতা সাবেক এই মিডফিল্ডার বিশ্বকাপের অন্য ফেবারিট দল নিয়েও কথা বলেছেন। তার বিশেষ অংশ তুলে ধরা হলো:

প্রশ্ন: এক বছর খেলার বাইরে আছেন। সময় কেমন যাচ্ছে?

আলোনসো: বেশ ভালো। ব্যাপার হচ্ছে আমার জীবনের গতিটা একদম আলাদা হয়ে গেছে। অনেকে ভেবে চিন্তে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। খারাপ লাগে মাঝে-সাজে। কিন্তু মনকে মানিয়ে চলি।

প্রশ্ন: কোচ হতে উৎসাহিত করেছে কোন দিকটি। ক্যারিয়ারে দারুণ কিছু কোচ পেয়েছেন। তাদেরকে সহজে বুঝতে পারার কারণে কি?

আলোনসো: কোচ হওয়া এমন একটি প্রশিক্ষণ আপনি আগে যা ছিলেন তা থেকে দূরে থাকতে চাইবেন। আর যাকে বেশি পছন্দ করতেন তেমন ব্যক্তিত্ব অনুসরণের চেষ্টা করবেন। আমি সবসময় এটাই বোঝার চেষ্টা করেছি ভালো ফুটবলার হওয়ার আর কোচ হওয়া কোনটা বেশি কঠিন। কোচ হতে গেলে আপনাকে অনেক কিছু জানতে হবে। দল সামলানো, মানসিকতা বোঝা, খেলোয়াড়দের সঙ্গে সম্পর্ক সবকিছুই খুব গুরুত্বপূর্ণ।

প্রশ্ন: স্পেন কোচ জুলেন লোপেতেগুই দল কেমন সামলাচ্ছে বলে আপনার মনে হয়?

আলোনসো: আমার মনে হয় তিনি খুবই ভালো করছেন। তার মাথায় কৌশলগুলো খুব পরিষ্কার খেলে। সে তার দলের খেলোয়াড়দের খুব স্পষ্ট করে বোঝান তিনি কী চান। আর এটাই সব থেকে দরকারি। এটা করতে না পারলে কোচ হিসেবে আপনি লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারবেন না। সেই দিক থেকে আমাদের দল বেশ এগিয়ে আছে বলবো।

প্রশ্ন: স্পেনের এই দল এবং বিশ্বকাপ ও ইউরো জয়ী দলের মধ্যে কোন মিল দেখেন?

আলোনসো: প্রতিপক্ষের কাছ থেকে খেলা হাতে নিয়ে আসার ধরণটা আগের মতোই আছে স্পেনের। তাদের খেলা নিয়ন্ত্রনে রাখা, মাঠ জুড়ে বল পাসিং এবং অন্যদের মতো সরাসরি আক্রমণ না করার বিষয়টা আগের মতোই আছে। স্পেনের ফুটবলকে যে বিষয়গুলো শক্তিশালী করেছি লোপেতেগুইয়ের দলে সেই বিষয়টা স্পষ্ট আছে।

প্রশ্ন: প্রতিভার পাশাপাশি বিশ্বকাপ জয়ী স্পেন দলের আলাদা কী ছিল?

আলোনসো: দলের গতিটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। সবাই একসঙ্গে একটি লক্ষ্য সামনে রেখে এগুচ্ছে এটা দারুণ একটা ব্যাপার। যদি সেটা কোন দল না করে তবে তারা মুখ থুবড়ে পড়বে। আমাদের বর্তমান দলের মধ্যেও ওই বিষয়গুলো আছে। দলে কিছু সিনিয়র খেলোয়াড় আছে। সত্যি বলতে বিশ্বকাপের আগে ব্যাপারটি খুব ইতিবাচক।

প্রশ্ন: রাশিয়ার জন্য ২৩ সদস্যের যে দলটা বেছে নেওয়া হয়েছে অন্য বছরের তুলনায় দলটি কম সমালোচিত হচ্ছে। প্রতিপক্ষকে এটা কতটা চাপে ফেলে দেয়?

আলোনসো: আমাদের দলের খেলোয়াড়রা মাঠে অবস্থান বুঝে জায়গা করে নিয়ে খেলে। ডিয়াগো কস্তা এবং মার্কো অ্যাসেনসিও যেভাবে খেলে সেটা দেখা দারুণ ব্যাপার। আমাদের সময়ে এতো বেশি কৌশল হাতে ছিল না। এই দলের প্রতিভাবান খেলোয়াড়দের কারণে যেটা আছে। স্পেনকে প্রথম ম্যাচে পর্তুগালের মুখোমুখি হতে হবে। এটা এমন এক ম্যাচ যেটা আপনাকে ভিন্নভাবে সামলাতে হবে।

প্রশ্ন: লা রোজারা ফেবারিট দলের মধ্যে অন্যতম। তারা কিভাবে এটা কাজে লাগাবে বলে মনে করেন। আর কোন দলের ভালো সুযোগ দেখছেন?

আলোনসো: আমিও তাদেরকে ফেবারিটের তালিকায় রাখছি। তবে আমার কাছে স্পেনের চেয়ে আর কোন ভালো দল নেই। আর আমি জানি না বিশ্বকাপে কী ঘটতে যাচ্ছে। তবে জার্মানি আমার দৃষ্টিতে ফেবারিট। তারা সবসময় শক্তিশালী দল এবং অন্যদের ভয় দেখাতে সক্ষম। জার্মানি যেভাবে খেলছে তারা যদি সেমিতে না উঠতে পারে তবে অবাক হওয়ার মতো ব্যাপার হবে। ব্রাজিলও একই পর্যায়ে আছে। আমার চোখে এই তিন দলই টপ ফেবারিট। এরপর আছে আর্জেন্টিনা এবং ফ্রান্স। সম্ভবত আরো একটা থেকে দুইটা বিস্ময় জাগানিয়া দল আছে।

প্রশ্ন: অনেক বছর বাদে দর্শক হিসেবে বিশ্বকাপ দেখবেন। কোন পরিকল্পনা করেছেন?

আলোনসো: আমি দর্শকদের সঙ্গে বসে বড় ম্যাচ দেখতে পছন্দ করি। দেখিও। সম্ভবত আমি ফাইনাল দেখতে যাচ্ছি। এরই মধ্যে টিকিট নিশ্চিত হয়ে গেছে আমার। এখন ফাইনালে স্পেনকে দেখার অপেক্ষায় আছি (হাসি)।

(সংগৃহিত)

ও/র